মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:১৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :

জরুরী সাংবাদিক নিয়োগ চলছে……..রাজশাহীর কথা  অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ সংগ্রহ করার জন্য দেশের সকল জেলা-উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ করা হবে।

তানোরে রেকর্ড পরিমাণ জমিতে আলু চাষ, দম ফেলার সময় নেই কৃষকের 

তানোরে রেকর্ড পরিমাণ জমিতে আলু চাষ, দম ফেলার সময় নেই কৃষকের 

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে চলতি মৌসুমে রেকর্ড পরিমাণ জমিতে আলু চাষ হচ্ছে। পর পর দু’বছর আলুর ভালো ফলন হলেও তেমন দাম না পাওয়ায় অনেকটাই কমে গিয়েছিলো আলু চাষের জন্যে কৃষকের অনিহা। তবে হঠাৎ করে এবছর আলুর দাম তিনগুণ বেশি হওয়ায় এবার কৃষকরা আলু চাষে বেশি উৎসাহী হয়ে উঠেছেন। এতে করে এবার যেন আলু চাষের জন্যে ফাঁকা থাকছেনা অনাবাদি জমি থেকে শুরু করে বাড়ির উঠান পর্যন্ত হচ্ছে আলু চাষ। যার ফলে দম ফেলার সময় নেই কৃষকের।
আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ইতিমধ্যে আমন ধান কাটা শেষ হওয়ায় সেই জমিতে আলুর রোপনের  সমারোহে ভরে উঠেছে আলুর মাঠ। অন্য বারের চাইতে এবার রেকর্ড পরিমাণ জমিতে আলু চাষ হওয়ায় একদিকে দাম নিয়ে কৃষকরা যেমন শঙ্কায় রয়েছে, অন্যদিকে তেমনি আবার লাভের আশায় বুকবেধেছেন আলু চাষিরা।
জানা গেছে, চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় আমন ধান কাটা মাত্র কৃষকরা আলু চাষে ঝুকে পড়েছেন। উপজেলার প্রায় প্রতিটি মাঠে এবার ব্যাপক হারে আলু চাষ হয়েছে। শীতের রাত জেগে বিরামহীন পরিশ্রম করছেন চাষিরা। প্রচন্ড শীতে রাত জেগে আলুর জমিতে দিচ্ছেন পানির সেচ। তানোর পৌর এলাকার গুবিরপাড়া গ্রামের কৃষক হাবিবুর রহমান জানান, তিনি গত বছর ২০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করে বেশ ভালো টাকা আয় করেছেন। এবার সেই আশায় তিনি ৪০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছেন। এবার আলু চাষের খরচ প্রায় দেড়গুন বেশি হবে বলে তিনি জানান। তানোর পৌর এলাকার সোমাসপুর গ্রামের কৃষক আফজাল হোসেন জানান, জীবনের প্রথম ঋণের টাকায় জমি টেন্ডার নিয়ে দেড় বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি। কিন্তু এবার রেকর্ড পরিমাণ জমিতে আলু চাষ হওয়ায় দাম নিয়ে চরম শঙ্কায় রয়েছি।
তানোর পৌর এলাকার গুবিরপাড়া গ্রামের প্রসিদ্ধ আলু চাষি হালিম মন্ডল বলেন, তিনি গত বছর ৪০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করে বেশ ভালো দাম পেয়েছেন। কিন্তু এবার ব্যাপক ভাবে আলু চাষ হওয়ায় তিনিও ১০০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছেন। একই গ্রামের কৃষক কিতাব আলী বলেন, তিনি গত বছর ১০ বিঘা জমিতে আলু চাষ করে ভালো ফলন ও দামও ভালো পাওয়ায় এবার ১৭ বিঘা জমিতে আলু চাষ করছেন।
কৃষক শিমুল বলেন, এবার ৫ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি। কিন্তু আলুর দাম নিয়ে এক প্রকার শঙ্কা কাজ করছে মনের ভিতরে।
তানোরের বিভিন্ন মাঠ ঘুরে দেখা যায়, বেশির ভাগ আলুখেতে গজিয়ে উঠতে শুরু করেছে আলুর সবুজ গাছ। কৃষকরা সেচ ও আলুখেতের পরিচর্যায় ব্যস্ত রয়েছেন।
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, তানোরে গত মৌসুমে আলু চাষ হয়েছিল প্রায় সাড়ে ৯ হাজার হেক্টর জমিতে। কিন্তু এবার প্রায় তিনগুন জমিতে আলু চাষ হয়েছে। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামিমুল ইসলাম জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকার জন্যে সঠিক সময়ে চাষিরা আলু রোপন করতে পারছেন। আশা করছি যতই আলু চাষ হোক কৃষকদের লোকসান হবে না। তবে যারা হিমাগারে রাখতে পারবেন তারা বেশী লাভবান হবেন বলে তিনি জানান।

নিউজটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন.......




© All rights reserved © 2020 Rajshahirkotha.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com